ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর ওপর মার্কিন নিষেধাজ্ঞা

ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মদ জাভেদ জারিফের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে মার্কিন অর্থ মন্ত্রণালয়। এই নিষেধাজ্ঞার ফলে যুক্তরাষ্ট্রে বা মার্কিন আওতাভূক্ত যেসব অঞ্চল সেখানে জাভেদ জারিফের সব সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করা হবে বলে অর্থ মন্ত্রণালয়ের তরফ থেকে জানানো হয়েছে।

মার্কিন অর্থমন্ত্রী স্টিভেন মুচিন বলেন, ইরানের সর্বোচ্চ নেতার (আয়াতুল্লাহ আলি খামেনির) বেপরোয়া বিভিন্ন এজেন্ডা বাস্তবায়ন করে যাচ্ছেন জাভেদ জারিফ।

যুক্তরাষ্ট্রের এই নিষেধাজ্ঞার জবাবে জাভেদ জারিফ এক টুইট বার্তায় বলেন, যুক্তরাষ্ট্র তার ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে কারণ তার এসব এজেন্ডার জন্য ওয়াশিংটন তাকে হুমকি বলে মনে করছে।

২০১৫ সালে ইরানের সঙ্গে হওয়া পরমাণু চুক্তি থেকে গত বছর বেরিয়ে যায় যুক্তরাষ্ট্র। তারপর থেকেই দু’দেশের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে।

তবে সাম্প্রতিক সময়ের বেশ কিছু ঘটনার কারণে পারস্য উপসাগরেও উত্তেজনা শুরু হয়েছে। এর ফলে ওই অঞ্চলে সামরিক সংঘাত শুরু হতে পারে বলে আশঙ্কা দেখা দিয়েছে।

হোয়াইট হাউসের নিরাপত্তা উপদেষ্টা জন বোল্টন বুধবার এক বিবৃতিতে বলেন, এটা ৯০ দিনের একটি সংক্ষিপ্ত নিষেধাজ্ঞা।

জাভেদ জারিফ বলছেন, যুক্তরাষ্ট্রের এই নিষেধাজ্ঞায় তার নিজের বা পরিবারের ওপর কোন প্রভাব পড়বে না। তিনি বলেন, ‘ইরানের বাইরে আমার কোন সম্পদ নেই।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here